২০ অক্টোবর ২০২০ ০৭:৪৪ অপরাহ্ন     |    ই-পেপার     |     English
২০ অক্টোবর ২০২০   |  ই-পেপার   |   English
“জৈন্তিয়ায় গ্যাস চাই” ইস্যুতে মন্ত্রী ইমরান যা বললেন ফেসবুক লাইভে
“জৈন্তিয়ায় গ্যাস চাই” ইস্যুতে মন্ত্রী ইমরান যা বললেন ফেসবুক লাইভে

জৈন্তা বার্তা ডেস্ক

জুলাই ৩০, ২০২০ ১২:০১ এএম

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি এবার অনেকটা খোলামেলা কথা বলেছেন বৃহত্তর জৈন্তিয়ায় গ্যাস চাই ইস্যূতে। মঙ্গলবার রাতে সিলেট ডায়লগ নামক একটি ফেসবুক পেইজের লাইভে দর্শকের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী তাঁর নির্বাচনী এলাকা সিলেট-৪ আসন  তথা বৃহত্তর জৈন্তিয়ার ঘরে ঘরে গ্যাস চাই ইস্যুতে যে সব কথা বলেছেন দৈনিক জৈন্তা বার্তা পত্রিকার পাঠকদের জন্য তা হুবহু  ধরা হলো। 

মন্ত্রী বলেন, আপনারা জানেন হরিপুরে প্রথমে গ্যাস আবিষ্কার হয়েছে। ৫০ এর দশকে। তারপর সারা দুনিয়ায় গ্যাস গেলেও আমাদের সিলেট এলাকায় গ্যাস আসে নাই। এখন কিন্তু অনেকে ফিল করছে। কিন্তু ৫০ এর দশকে এক অবস্থা আর এখন ২০২০ এক অবস্থা। এখানে কিন্তু কমপ্লিটলি অবস্থার পরিবর্তন হয়ে গেছে। বড় কথা হলো সরকারের নীতিগত সিন্ধান্ত হলো বাড়ি বাড়ি গ্যাস এখন আর আপাতত দেবে না। কারণ এটা ব্যয়বহুল। তাই অটোমেটিক্যালি সিলিন্ডার গ্যাস আপনারা দেখেন।  সিলিন্ডার গ্যাসের উপর সরকার গুরুত্ব দিয়েছে। 

২য় কথা হলো আমাদেরকে মনে রাখতে হবে বিদেশ থেকে এখন আমরা গ্যাস আমদানী করছি। আমদানী মূল্যও অনেক বেশী। এই কয়েকটা ফ্যাক্টর মিলিয়ে আমি উদাহরণ দিয়ে বলতে পারি অনেক বছর আগে থেকে অনেক ধাক্কা ধাক্কি করে গ্যাস পাইপ লাইন আরম্ভ করেছিলাম যেটা রওয়ানা দিয়েছিল জৈন্তার দিকে। কিন্তু হরিপুর থেকে হেমু পর্যন্ত লাইন টানা হয়েছিল বেশ কয়েক কোটি টাকা খরচ করে। কিন্তু আমার মনে হয় আজ পর্যন্ত এটা ইকোনমিক্যাল হয়নি। কারণ গ্রাহক পাওয়া যায়নি। এখন সরকার খরচ করবে পাইপ লাইন দিবে। তারপর ওটার খরচ উঠবে না। আমি কিন্তু এটা খুব বেশী একসেপ্ট করতে পারিনা। 

যাই হোক তারপরেও আমি আমার ভাইদেরকে বলবো আপনারা যেহেতু প্রশ্ন তুলেছেন যদি সম্ভব হয় আমি মন্ত্রীর সাথে এবং বাকি মন্ত্রীদের সাথে আলাপ করে দেখি কি করা যায়।

 

এ/ই ১০২