২৩ অক্টোবর ২০২০ ১১:৩৯ পূর্বাহ্ন     |    ই-পেপার     |     English
২৩ অক্টোবর ২০২০   |  ই-পেপার   |   English
বন্দরবাজারে আলহেরা ফার্মেসীতে সন্ত্রাসী হামলা
বন্দরবাজারে আলহেরা ফার্মেসীতে সন্ত্রাসী হামলা

জৈন্তা বার্তা ডেস্ক

অক্টোবর ০৭, ২০২০ ০২:৩৬ এএম

পুর্ব শত্রুতার জের ধরে বন্দরবাজার আলহেরা ফার্মেসীতে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার সন্ধায় সংঘটিত এ সন্ত্রাসী হামলায় আলহেরা ফার্মেসীর  স্বত্তাধীকারী ওয়ারিছ উদ্দিনের উপর পাশ্ববর্তী আলফালাহ ফার্মেসীর মালিক ও কর্মচারীরা সন্ত্রাসী হামলা করেছে বলে আক্রান্তরা অভিযোগ করেছে। এ ঘটনায় আহত ওয়ারিছ উদ্দিন বর্তমানে সিওমেক এ চিকিৎসাধীন আছেন।  বন্দরবাজার ব্যবসায়ী সমিতি বিষয়টি আপোষ নিষ্পত্তির চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

জানা যায় বিভিন্ন সময় আলফালাহ ফার্মেসীর কতৃপক্ষ  মেয়াদ উত্তীর্ণ ও বিভিন্ন কোম্পানীর দেওয়া সৌজন্য (সেম্পল) ক্রেতার কাছে চড়া মূল্যে বিক্রী করে। দুটো ফার্মেসী পাশাপাশি হওয়ায় অনেক সময় ক্রেতারা বিক্রীত ঔষধ ফেরত দিতে আল হেরা ফার্মেসীতে আসে।এ ক্ষেত্রে সব সময় ওয়ারিছ আলফালাহ ফার্মেসীতে যাবার জন্য বলেন এবং তিনি ঔষধ কোম্পানী প্রদত্ত এই ধরণের সেম্পল বিক্রী করেন না বলে জানিয়ে দেন। স্থানীয় লোকদের সাথে কথা বলে জানাযায় গত দিন একজন ক্রেতা আলফালাহ ফার্মেসী থেকে একটু ড্রপ ক্রয় করেন।পরবর্তীতে আলহেরা ফার্মেসীতে ঔষধ টি ফেরত দিতে আসলে ওয়ারিছ উদ্দিন এই ঔষধ তিনির নয় বলে ক্রেতাকে আলফালাহ ফার্মেসীতে যাবার জন্য বলেন।

ক্রেতা আলফালাহ ফার্মেসীতে গিয়ে ঔষধ ফিরিয়ে দেন । খানিকক্ষণ পরে আলফালাহ ফার্মেসীর আব্দুল ওয়াদুদ সহ ৪-৫ জন আলহেরা ফার্মেসীতে গিয়ে ওয়ারিছ উদ্দিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন এবং ক্রেতাকে তাদের ফার্মেসী দেখিয়ে দেওয়ার কারণে হুমকি প্রদর্শন করেন।এতে ওয়ারিছ উদ্দিন, আলফালাহ ফার্মেসীর আব্দুল ওয়াদুদকে মেয়াদ উত্তীর্ণ ও কোম্পানী প্রদত্ত সেম্পল ঔষধ বিক্রী করে ক্রেতার সাথে প্রতারণা না করার অনুরোধ করলে তর্ক বাধে। তর্কের এক পর্যায়ে আলফালাহ ফার্মেসী থেকে আসা আব্দুল ওয়াদুদ ও গং ৪-৫ জন লোক আলহেরা ফার্মেসীর মালিক ওয়ারিছ উদ্দিনের উপর চড়াও হয়। ফার্মেসী ভাংচুর করে, ক্যাশ লুট করে এবং লাটি ও রট দিয়ে ওয়ারিছ উদ্দিন কে আহত করে। মাথায় ও চুখে আঘাত প্রাপ্ত হয়ে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

ঘটনার এক পর্যায় পাশ্ববর্তী ব্যবসায়ীবৃন্দ এসে আহত ওয়ারিছ উদ্দিনকে উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করান।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে, ওয়ারিছ উদ্দিন বর্তমানে সিওমেক এ চিকিৎসারত অবস্থায় রয়েছেন। বন্দরবাজার ব্যবসায়ী সমিতি বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য আলোচনায় বসেছে।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় জৈন্তিয়া কেন্দ্রীয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মো:জামাল উদ্দিন এ ধরণের নৃসংস হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন এবং সুষ্ট বিচার দাবী করেছেন।

নিন্দা জানিয়েছেন গোয়াইনঘাট এসোসিয়েশন সিলেট যুগ্ন সম্পাদক অধ্যক্ষ কামরুল আহমদ শেরগুল, গোয়াইনঘাট সমিতির সেক্রেটারি আহমেদ মুসতাকিন ,জৈন্তিয়া কেন্দ্রীয় পরিষদ গোয়াইনঘাট শাখার যুগ্ন আহবায়ক প্রভাষক মো:লুৎফুর রহমান সহ বৃহত্তর জৈন্তিয়ার বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

ই/ডি