২৫ নভেম্বর ২০২০ ০১:৩৬ অপরাহ্ন     |    ই-পেপার     |     English
২৫ নভেম্বর ২০২০   |  ই-পেপার   |   English
জম্মু-কাশ্মীরের ৩৩ নেতার বিদেশ সফরে নিষেধাজ্ঞা
বিমানবন্দর থেকে ফিরিয়ে দেয়া হলো সাবেক এমএলএকে
বিমানবন্দর থেকে ফিরিয়ে দেয়া হলো সাবেক এমএলএকে

জৈন্তা বার্তা ডেস্ক

নভেম্বর ১৫, ২০২০ ০২:৫৯ পিএম

ভারতের জম্মু-কাশ্মীরের ৩৩ নেতার বিদেশ সফরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এ কারণে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিমানবন্দর থেকে ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে সাবেক এমএলএ ও ন্যাশনাল কনফারেন্স (এনসি) নেতা আলতাফ আহমেদ ওয়ানিকে।

তিনি এদিন দুবাই সফরের উদ্দেশ্যে দিল্লি বিমানবন্দরে গেলে সেখান থেকে তাকে ফিরিয়ে দিয়ে বলা হয় আগামী বছরের মার্চ মাস পর্যন্ত তিনি দেশের বাইরে যেতে পারবেন না। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

গত বছর ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীরের বাসিন্দাদের জন্য বিশেষ মর্যাদা সম্পন্ন ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করার পর থেকে কাশ্মীর উপত্যকার রাজনীতিকদের গতিবিধির ওপর কঠোর নজরদারি চলছে।

সে সময় ন্যাশনাল কনফারেন্স, পিডিপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ৩৭ নেতার একটি তালিকা তৈরি করে প্রশাসন। প্রথমে তিন মাসের জন্য তাদের বিদেশ সফরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। পরে ওই নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়ানো হয়।

সম্প্রতি ওই তালিকা থেকে কয়েকজনের নাম বাদ দেয়া হয়। এ মুহূর্তে নিষেধাজ্ঞার তালিকায় ৩৩ জনের নাম রয়েছে। নিষেধাজ্ঞার তালিকায় ন্যাশনাল কনফারেন্স, পিডিপি এবং জম্মু-কাশ্মীর পিপলস কনফারেন্সের নেতাদের নাম অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

সাবেক বিধায়ক ও ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা আলতাফ আহমেদ ওয়ানি পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দুবাইতে যাচ্ছিলেন। দিল্লি বিমানবন্দরে সঙ্গে থাকা জিনিসপত্র চেক করাও হয়ে গিয়েছিল।

কিন্তু ইমিগ্রেশন কাউন্টার থেকে আচমকাই তাকে বিমানবন্দরের একটি ঘরে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। বলা হয়, তার পাসপোর্ট নিয়ে কিছু সমস্যা রয়েছে।

টানা ৩ ঘণ্টা ওই ঘরে আটকে রাখার পর জানানো হয়, তিনি দেশের বাইরে পা রাখতে পারবেন না।

তাকে কেন আটকানো হচ্ছে, ইমিগ্রেশন কর্মকর্তাদের কাছে জানতে চেয়েও সদুত্তর পাননি বলে জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক বিধায়ক ও ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা আলতাফ আহমেদ ওয়ানি।

এস/এন