০৫ মার্চ ২০২১ ০৬:৪১ অপরাহ্ন     |    ই-পেপার     |     English
০৫ মার্চ ২০২১   |  ই-পেপার   |   English
জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার (অব.) ডা. এ মালিক
বঙ্গবীর ওসমানী সারা জীবন কাটিয়েছেন এ দেশের মাটি ও মানুষের মুক্তির জন্য
বঙ্গবীর ওসমানী সারা জীবন কাটিয়েছেন এ দেশের মাটি ও মানুষের মুক্তির জন্য

জৈন্তা বার্তা ডেস্ক

ফেব্রুয়ারী ১৭, ২০২১ ১২:৩০ পিএম



বাংলাদেশে তত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা, ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা এবং ওসমানী মেমোরিয়েল স্মৃতি ট্রাস্টের চেয়ারম্যান জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার (অব.) ডাঃ এ মালিক বলেছেন, জেনারেল ওসমানী সারা জীবন কাটিয়েছেন এ দেশের মাটি ও মানুষের মুক্তির জন্য, উন্নতির জন্য ও অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য। স্বাধীনতা যুদ্ধে তিনি নিয়ামকের ভূমিকা পালন করেন। অধিকার আদায়ের লড়াইয়ে তিনি কখনো পিছু হটেননি। তিনি আরো বলেন, ওসমানীর গভীর দেশপ্রেম ও বাঙালিদের অধিকার আদায়ে তার আপসহীন মনোভাব সম্পর্কে বঙ্গবন্ধু অবহিত ছিলেন। জাতীয় স্বার্থে বঙ্গবন্ধু তাকে রাজনীতিতে যোগ দেয়ার জন্য আহ্বান জানান। ১৯৭০ সালের জুলাই মাসে ওসমানী আওয়ামী লীগে যোগ দেন এবং সাধারণ নির্বাচনে বালাগঞ্জ, ফেঞ্চুগঞ্জ, বিশ্বনাথ ও গোলাপগঞ্জ সহ চার এলাকা নিয়ে গঠিত আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে জাতীয় সংসদ সদস্য বা MNA নির্বাচিত হন। বাংলাদেশ পৃথিবীর বুকে যত দিন টিকে থাকবে তত দিন বঙ্গবীর জেনারেল ওসমানী বেঁচে থাকবেন এ দেশের মাটি ও মানুষের মনের মণিকোঠায় মুক্তির সুউজ্জ্বল আলোকবর্তিকা হিসেবে।

তিনি মঙ্গলবার বিকেলে নগরীর নাইওরপুলস্থ ওসমানী যাদুঘর প্রাঙ্গনে মহান মুক্তিযোদ্ধের প্রধান সেনাপতি (সি-ইন-সি) বঙ্গবীর জেনারেল এমএজি ওসমানী’র ৩৭তম মৃত্যু বার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষে ওসমানী যাদুঘর সিলেট ও সংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে ভার্চুয়ালী যোগদিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

সিলেট ওসমানী যাদুঘরের সহকারি কিপার মোঃ জিয়ারত হোসেন খানের সভাপতিত্বে ও কাজী জালাল উদ্দিন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক রুনা সুলতানা এবং মাহমুদা আক্তার সুমির যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেটের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) জাকারিয়া, বঙ্গবীর ওসমানী গবেষণা ইনস্টিটিউটের চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ মালেক খান, মহানগর দায়রা জজ আদালতের পিপি ও সিলেট ওসমানী স্মৃতি ট্রাস্টের ট্রাস্টি এডভোকেট নওসাদ আহমদ চৌধুরী, সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম মুক্তিযুদ্ধ ৭১ এর বিভাগীয় সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট সরওয়ার আহমদ চৌধুরী আবদাল, সিলেট জেলা বারের  সাবেক সভাপতি এডভোকেট এমাদউল্লাহ শহীদুল ইসলাম, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ মহানগর ইউনিট কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুল খালিক, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি নাজনীন হোসেন, বঙ্গবীর ওসমানী গবেষণা ইন্সটিটিউটের প্রচার সম্পাদক রোটারিয়ান হেপী বেগম।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উইমেন্স মডেল কলেজের চেয়ারম্যান রোটারিয়ান মাহবুব আলম মিলন, যুগ্ম আহ্বায়ক আহমদ কবির রিপন, প্রভাষক খালেদ উদ্দিন, ফুলকলির ডেপুটি ম্যানেজার জসিম উদ্দিন খন্দকার, রাজা ম্যানশন ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মাসুদ হোসেন খান, যুব সংগঠক কয়েছ আহমদ সাগর, বশির আহমদ, আখতার হোসেন, মো. মামুন চৌধুরী, আলী হোসেন খান রাসেল প্রমুখ। দিনব্যাপী কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে সকাল ৮টায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন, ওসমানী মাজারে পুষ্পস্তক অর্পন ও মোনাজাত করা হয়। বিকেলে ওসমানী যাদুঘর প্রাঙ্গনে আলোচনা সভা, শিশুদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ, শিরনি বিতরণের মাধ্যমে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানসূচির সমাপ্তি ঘোষণা করা হয় ।   

 

এস/সি/ইউ