০৭ মার্চ ২০২১ ০৩:৪২ অপরাহ্ন     |    ই-পেপার     |     English
০৭ মার্চ ২০২১   |  ই-পেপার   |   English
সিলেটে ক্রিকেট মাঠে মাতৃভাষা দিবস উদযাপন
সিলেটে ক্রিকেট মাঠে মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

মোহাম্মদ আফজল

ফেব্রুয়ারী ২১, ২০২১ ০১:৫৩ পিএম



ক্রিজে তখন ব্যাট করছেন তৌফিক খান তুষার, মারকুটে ব্যাটিং করে যাচ্ছেন। ইচ্ছা মত চার ছয়ের ফুলঝুরি ছুটাচ্ছেন। নানন্দিক এই ব্যাটিং শৈলির হয়তো মন কেড়েছে সবার। তুষার যখন ব্যাট করছিলেন তখন সব মনোযোগটা তার দিকেই ছিল, কিন্তু তার পরনে যে জার্সি ছিল সেটাতে নাম দেখে বুঝার কোনো উপায় নেই যে তিনি তুষার ব্যাট করছেন। কারণ তার পরনের জার্সিতে নাম লেখা ছিল নাজমা। এটা দেখে হয়তো প্রথমে কেউ না ও চিনতে পারে। আসলে তিনি তার মায়ের নামে জার্সি পরে খেলতে নেমেছিলেন। জার্সিতে যে সংখ্যাটা ছিল সেটাও বাংলায় লেখা ‘৪২’। 

এদিন অলক কাপালিও খেললেন পুষ্প কপালী নামের জার্সি পরে, অন্যদিকে দলের ডাগ আউটে কোচ রাজিন সালেহ হাটাহাটি করছিলেন ‘৩৫’ নম্বর জার্সিতে তাঁর মায়ের নাম সাহানা নিয়ে। আসলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ভাষা শহীদের এবং তাদের মায়েদের প্রতি সম্মান জানাতে স্টার প্যাসিফি স্ট্রাইকার্সে এমন ভিন্ন আয়োজন। 

‘’আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি।‘’ ইভ্যালি সিলেট টি২০ ব্লাস্টে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলতে নামার আগে স্টার প্যাসিফিক স্ট্রাইকারস দলের মালিক পক্ষে হয়তো এই লাইনটার কথা মনে হয় বারবার মনে হয়েছিল। আসলেই তো ৫২ ভাষা আন্দোলনের কথা কি করে ভুলব তারা! এটা তো আমাদের জাতি সত্ত্বার সাথে মিশে আছে, যা কখনো ভুলার নয়। 

২১ ফেব্রুয়ারি মাঠে নামার আগে স্টার প্যাসিফিক স্ট্রাইকার্সে মালিক এবং দলের ম্যানেজার মিলে সিদ্ধান্ত নেন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে তারা জার্সিতে নাম এবং নাম্বার বাংলায় লেখার সিদ্ধান্ত নেয়। দলের এমন সিদ্ধান্তে সাড়া দেন সব ক্রিকেটার, এমন সিদ্ধান্তকে তারা সাধুবাদ জানান।

মাতৃভাষা দিবসে মাকে স্মরণ করতে প্রত্যেকের ক্রিকেটার নিজের নামের পরিবর্তে প্রত্যেকের মায়ের নাম লিখে খেলতে নামেন। স্টার প্যাসিফিক দলের কোচ রাজিন সালেহ এই প্রথম নিজের জার্সিতে মায়ের নাম এবং বাংলাতে জার্সিতে নাম্বার সম্বলিত জার্সি পরে ডাগ আউট বসে দল পরিচালনা করছেন। দলের এমন সিদ্ধান্তে উচ্ছসিত রাজিন সালেহ। ‘’আসলে সিলেটে এবার প্রথম জার্সিতে ক্রিকেটারদের মায়ের নাম লিখে খেলছে। দেশের ক্রিকেটে একবার বিপিএলে রাজশাহী দল এমন আয়োজন করেছিল। মায়ের নামে জার্সি পরতে পারাটাও গর্বের আমার জন্য।‘’

ই/ডি