এপ্রিল / ১৮ / ২০২১ ০২:৪৪ পূর্বাহ্ন

ইকবাল হোসেন তালুকদার, নবীগঞ্জ

এপ্রিল / ০৬ / ২০২১
১০:৩৭ অপরাহ্ন

আপডেট : এপ্রিল / ০৬ / ২০২১
১০:৩৭ অপরাহ্ন


নবীগঞ্জে টিসিবির পণ্য কিনতে ভিড়

দেশে পূর্বের সকল রেকর্ড ছাড়িয়ে তৃতীয় দফায় বেড়েছে করোনা সংক্রমণ। করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে সোমবার (৫ এপ্রিল) থেকে এক সপ্তাহের লকডাউনের দিয়েছে সরকার।
করোনার সংক্রমণ রোধে নিষিদ্ধ করা হয়েছে সকল রকম জনসমাগম। বন্ধ করা হয়েছে সকল রকম সামাজিক অনুষ্ঠান। তবে এ নিষেধ অমান্য করেই ন্যায্যমূল্যের পণ্য কিনতে নবীগঞ্জে উপচেপড়া ভিড় দেখা যায় ক্রেতাদের।
মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) বিকেলে নবীগঞ্জ শহরের শেরপুর রোডে মা হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টের সামনে ট্রাকে করে টিসিবির পণ্য কিনতে এমন ভিড় দেখা যায়। করোনার সংক্রামণ রোধে জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হলেও কে শুনে কার কথা। ন্যায্যমূল্যের পণ্য কিনতে অক্লান্ত চেষ্টা ক্রেতাদের।
টিসিবির ডিলাররা খোলাবাজারে প্যাকেজ করে ৫ পদ জিনিস বিক্রি করছেন ৮০০ টাকায়। ৪ লিটার তেল, ২ কেজি চিনি, ১ কেজি ডাল, ৫ কেজি পেঁয়াজ ও ১ কেজি খেজুর বিক্রি করছে। বাজারের মূল্যের চেয়ে টিসিবির মূল্য কম হওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে পণ্য কিনছেন ক্রেতারা।
টিসিবির পণ্য নিতে আসা দীপক সরকার বলেন, আমরা করোনাভাইরাস ও লকডাউন সম্পর্কে জানি। কিন্তু পণ্য তো কিনতে হবে। আমি নিজে সচেতন হলেও অন্যরা তো সচেতন হচ্ছে না।

টিসিবির পণ্য নিতে আসা মাসুদ আলী শিকদার জানান, বাজারের জিনিসপত্রের যে দাম তাই ভিড়ের মাঝে এসেও এখানে দাম কম হওয়ায় নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে আসছি।
ক্রেতারা বলেন, তারা করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে জনসমাগম নিষিদ্ধের বিষয়টি জানেন। পণ্যের দাম বেশি হওয়ায় ন্যায্যমূল্যে পণ্য পেতে ঝুঁকি নিয়েই লাইনে দাঁড়িয়েছেন তারা।
এভাবে সাশ্রয়ী মূল্যে পণ্য সরবরাহ সারাবছর থাকা দরকার। তারা যে দামে পণ্য দিচ্ছেন অবশ্যই লাভ রেখেই দিচ্ছেন। তারপরেও অনেক ঠেলা-ধাক্কার পর টিসিবির পণ্য কিনতে পেরে খুশি ক্রেতারা।

হবিগঞ্জ