এপ্রিল / ১৮ / ২০২১ ০৩:৩২ পূর্বাহ্ন

জৈন্তা বার্তা ডেস্ক

এপ্রিল / ০৮ / ২০২১
০৩:৪৩ অপরাহ্ন

আপডেট : এপ্রিল / ০৮ / ২০২১
০৩:৪৩ অপরাহ্ন


ব্যাক গিয়ারে হেফাজত, মুন্সিগঞ্জে সমাবেশের সিদ্ধান্ত বাতিল

সম্প্রতি নরেন্দ্র মোদির আগমনকে কেন্দ্র করে হেফাজতের বিক্ষোভ ও হরতালে সৃষ্ট সহিংসতায় অন্তত ১৭ জনের প্রাণহানী ও নজিরবিহীন তাণ্ডবের রেশ এখনো কাটেনি। এরই মধ্যে ঢাকার কাছে মুন্সিগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলায় সংগঠনটি নতুন করে সমাবেশের ডাক দেওয়ায় জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছিল। তবে পুলিশ ও প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের কারণে শেষ পর্যন্ত পিছু হটেছে হেফাজত। সমাবেশ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৪৪ ধারা জারির পর বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে পিছু হটে হেফাজতে ইসলাম। বুধবার সন্ধ্যায় তারা সমাবেশ স্থগিতের ঘোষণা দেয়।

এর আগে মুন্সিগঞ্জের পুলিশ সুপার আব্দুল মোনেম এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ১৪৪ ধারা অমান্য করে হেফাজতে ইসলাম যদি সভা-সমাবেশ কিংবা লোক জড়ো করার চেষ্টা করে তাহলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোনওভাবেই ছাড় দেয়া হবে না।

যে কোন ধরণের সংঘাতের আশংকায় ৫০০'র বেশি পুলিশ সদস্য ওই এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে। হেফাজত যাতে আজকের  আহুত এই সমাবেশ করতে না পারে সেজন্য সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কায় সভা-সমাবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা দিয়ে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

মুন্সিগঞ্জের স্থানীয় সাংবাদিক মারফত জানা গেছে , বুধবার সন্ধ্যা ছয়টা থেকে বৃহস্পতিবার রাত ১০টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে কেয়াইন ইউনিয়নের কুচিয়ামোড়া কলেজ মাঠ এবং নিমতলা বাসস্ট্যান্ডসহ চারটি জায়গায়।

এদিকে, হেফাজতে ইসলামের সহকারী প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ ফয়সাল জানিয়েছেন, "এরই মধ্যে সমাবেশ স্থগিত করা হয়েছে এবং মুন্সিগঞ্জের ওই এলাকায় হেফাজতে ইসলামের নেতা-কর্মীরা জড়ো হবেন না। করোনা পরিস্থিতিতে আমরা নিজেরাই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এছাড়া, প্রশাসনের তরফ থেকেও আমাদের স্থানীয় নেতৃবৃন্দের কাছে অনুরোধ করা হয়েছিল।"

 

জাতীয়