অগাস্ট / ১৪ / ২০২২ ০৬:৫২ অপরাহ্ন

রেজুওয়ান কোরেশী, জগন্নাথপুর

জুন / ৩০ / ২০২২
০৯:২০ অপরাহ্ন

আপডেট : অগাস্ট / ১৪ / ২০২২
০৬:৫২ অপরাহ্ন

জগন্নাথপুরে আশ্রয়কেন্দ্র ছেড়ে বাড়ী ফিরছেন বন্যাকবলিত মানুষ



36

Shares

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে গত কয়েকদিন বন্যার পানিতে কমতে শুরু হওয়ায় অনেক পরিবার আশ্রয় কেন্দ্র ছেড়ে বসতবাড়ীতে ফিরছেন বৃহস্পতিবার (৩০ জুন)সরেজমিনে গুরে দেখা যায়। তবে অধিকাংশ বসতবাড়ী থেকে পানি  বন্যার পানি ধীরগতিতে নামায় আশ্রয় কেন্দ্রে আসা লোকজন ফিরতে পারছেন না।

উপজেলাবাসী জানান,গত ১৬ জুন অব্যাহত বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে জগন্নাথপুর উপজেলা বন্যা কবলিত হয়ে পড়ে। ভোররাত থেকেই লোকজন আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নিতে থাকেন। ১৭ জুন সকাল থেকে উপজেলার একটি পৌরসভা ও আট ইউনিয়নের স্কুল কলেজ মাদ্রাসা সহ বিভিন্ন দপ্তরে বন্যা কবলিত মানুষেরা আশ্রয় নেন। পানি কমতে শুরু করায় গত মঙ্গলবার থেকে লোকজন বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন।

জগন্নাথপুর হাসিমাবাদ এলাকার বাসিন্দা আব্দুর রহিম, জানান গত ১১ দিন  ছিলাম স্বরুপ চন্দ্র সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় আশ্রয়  কেন্দ্রে। ঘর থেকে পানি নামায় মঙ্গলবার পরিবারের সবাইকে নিয়ে বাড়ি ফিরছি।তিনি বলেন,বাড়ির আঙ্গিনায় এখনো বন্যার পানি রয়েছে।

জগন্নাথপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় আশ্রয় কেন্দ্রে থেকে ১০ টি পরিবার চলে যায়। তাঁরা পৌর এলাকার বাদাউড়া এলাকা থেকে ওই কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছিলেন।ক্ষিতিপ দাস নামে বাদাউড়ার বাসিন্দা জানান,নিজের বাড়িঘর ছেড়ে কেউ আশ্রয় কেন্দ্রে গিয়ে থাকতে চায় না। নিরুপায় হয়ে থাকতে হয়েছে

তিনি বলেন, বাড়ি ঘরের বেহাল দশা।অনেক কষ্ট হবে থাকার উপযোগী করতে। জগন্নাথপুর পৌর সভার ভারপ্রাপ্ত সচিব সতীশ গোস্বামী বলেন, পৌর ভবনে ৫ শতাধিক মানুষ আশ্রয় নিয়েছিলেন।শতাধিক মানুষ গতকাল থেকে বাড়ি ফিরছেন। পানি কমতে শুরু করেছে আশা করছি দ্রুত বানভাসি মানুষ আশ্রয় কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফিরে যাবে।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজেদুল ইসলাম বলেন, পানি কমতে শুরু করায় আশ্রয় কেন্দ্র থেকে মানুষ বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন।

রেজুওয়ান কোরেশী, জগন্নাথপুর

জুন / ৩০ / ২০২২
০৯:২০ অপরাহ্ন

আপডেট : অগাস্ট / ১৪ / ২০২২
০৬:৫২ অপরাহ্ন

সুনামগঞ্জ